দেওয়ানগঞ্জে স্ত্রীকে খুন, স্বামী আটক

জামালপুর নিউজ টপ নিউজ সারাদেশ নিউজ

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্রে করে ৯ জুন রাতে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় দুই সন্তানের জননী মনিরা বেগমকে (৩৫) কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী শফি আলম (৪০)। এ ঘটনায় শফি আলমকে আটক করেছে দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ৯ জুন রাতে উপজেলার পাররামরামপুর ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া নতুন গ্রামে। নিহত পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ৮ বছর আগে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার হাতীভাঙ্গা ইউনিয়নের আমখাওয়া গ্রামের মতিউর রহমানের মেয়ে মনিরা বেগমের সাথে পাশের ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া নতুন গ্রামের মৃত মুনছর আলীর ছেলে শফি আলমের সাথে বিয়ে হয়। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। ৯ জুন সকালে বানিয়াপাড়া নতুন গ্রামে স্বামীর বাড়িতে গোবাদী পশু গরুকে পানি খাওয়ানোকে কেন্দ্র করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ হয়। ৯ জুন রাতে খাবার খেয়ে মনিরা বেগম সন্তানদের নিয়ে নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়লে ঘুমন্ত অবস্থায় ঘাতক স্বামী শফি আলম ধারালো কোদাল দিয়ে মুখে উপর্যুপরী কোপাইতে থাকে। ছেলে-মেয়ের ডাক চিৎকারে পার্শ্ববর্তী বাড়ির লোকজন ঘরে ঢুকে ক্ষত-বিক্ষত মনিরা বেগমকে দেখে তারাটিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে সংবাদ দিলে পুলিশ স্বামীকে আটক করে এবং নিহত মনিরার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেওয়ানগঞ্জ সার্কেল রাকিবুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্ত্রীকে হত্যা করা হয়েছে। দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এম মায়নুল ইসলাম জানান, মনিরার লাশ উদ্ধার করে ১০ জুন সকালে ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং ঘাতক স্বামী শফি আলমকে আটক করা হয়েছে। এ হত্যার ঘটনায় নিহত মনিরা বেগমের বাবা মতিউর রহমান বাদী হয়ে দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *